কাপ্তাইয়ে ভবন ধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫

kaptaiনিউজ ডেস্ক: রাঙামাটি শহরে কাপ্তাই হ্রদ ঘেঁষে গড়ে তোলা দোতলা ভবন পানিতে ধসে পড়ার ঘটনায় নিখোঁজ শিশু সাজিনের (০৪) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার সকালে শিশুটির মৃতদেহ উদ্ধার করেন নৌবাহিনীর ডুবুরিরা। এ নিয়ে ভবন ধসে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল পাঁচজনে।

মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে মহিলা কলেজ সড়কের হ্রদের পাড়ে অবস্থিত নঈমউদ্দিন টিটু নামের এক ঠিকাদারের মালিকানাধীন দোতলা ভবন দেবে যেতে শুরু করে। মাত্র ১০ মিনিট সময়ের মধ্যে ভবনটির নিচতলা পুরো দেবে যায়। এ সময় ধসে পড়া ভবনটিতে বসবাসকারী চারটি পরিবারের শিশুসহ ১০ সদস্য আটকা পড়ে।

পরে ভবনটি থেকে মৃত অবস্থায় ট্রাক ড্রাইভার জাহিদ (৪২), তাঁর ছেলে শিশু সামিদুল (৭), গৃহশিক্ষিকা ও রাঙামাটি সরকারি কলেজের অনার্সের ছাত্রী উম্মে হাবিবা রুনা (২২), আরেক বাসিন্দা রফিকের মেয়ে পিংকি (১৩) এবং আজ সর্বশেষ সাজিদুলকে (১০) উদ্ধার করা হয়।

ভবনধসের পর থেকে ফায়ার সার্ভিস ও নৌবাহিনীর ডুবুরিরা উদ্ধারকাজ চালিয়ে আসছিলেন। বুধবার সকালে সাজিদুলকে উদ্ধারের পর অভিযান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

উদ্ধারকাজে নিয়োজিত নৌবাহিনীর কমান্ডার রায়হান বলেন, আর কেউ ভবনে আটকে না থাকায় উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।