‘ট্রাম্প পরবর্তী প্রেসিডেন্ট, আমাদের ফল মেনেই সামনে এগুতে হবে’

usaনিউজ ডেস্ক: সমর্থকদের উদ্দেশ্যে দেওয়া এক আবেগঘন ভাষণে যুক্তরাষ্ট্র ডেমোক্রেট দলীয় প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন বলেছেন, দেশবাসীর পক্ষ থেকে গতকাল রাতেই আমি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিনন্দন জানিয়েছি। বলেছি আমরা একসঙ্গে কাজ করতে চাই।

নির্বাচনের ফলাফল মেনে নিয়ে হিলারি বলেন, সংবিধান সমুন্নত রাখতেই শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর বিষয়টি জরুরি। ডোনাল্ড ট্রাম্প হচ্ছেন আমেরিকার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট। আমি আশা করি তিনি সব আমেরিকানদের জন্য একজন সফল প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করবেন। আমরা মুক্ত মনে তাকে নেতৃত্বের জন্য স্বাগত জানাচ্ছি।

বুধবার নিউইয়র্কার হোটেলের গ্রান্ড বলরুমে নিজ দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্য দেওয়া নির্বাচন ফল পরবর্তী ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন।

সমর্থক ও প্রচারে অংশ নেওয়া কর্মীদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, আমরা যেমনটা প্রত্যাশা করেছিলাম ফল কিন্তু তা হয়নি। আমরা কঠোর পরিশ্রম করেছি, জিততে পারিনি সেজন্য দুঃখিত।

নির্বাচনী লড়াইয়ে হারায় হতাশ না হবার আহবান জানিয়ে হিলারি বলেন, আমি জানি সর্বোচ্চ ও প্রাণান্ত চেষ্টা করে আমরা আটকে পড়িনি। খুব শীঘ্রই তার ফল দেখতে পাবেন। হয়তো প্রত্যাশারও খুব কম সময়ে কেও তা দেখিয়ে দিতে পারেন।

নারীদের উদ্দেশ্যে আবেগাপ্লুত কণ্ঠে হিলারি বলেন, সব নারীদেরকে বলছি, বিশেষ করে তরুণীদের যারা আমার সঙ্গে প্রচারণায় অংশ নিয়েছো, আমাকে বিশ্বাস করেছো, আমি তোমাদের বলতে চাই, কোনো কিছু আমাকে এতোটা আনন্দ দিতে পারেনি যতটা আনন্দ পেয়েছি তোমাদের মাঝে সেরা হয়ে।

তিনি বলেন, ছোট কিশোরীদের বলছি, যারা আমার বক্তব্য দেখছো কিংবা শুনছো, এতে কোনো সন্দেহ নেই যে তোমরাই পৃথিবীর সবচেয়ে মূল্যবান, ক্ষমতাসম্পন্ন ও কাংখিত শক্তি। যারা পারবে নিজেদের স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে।

ভাষণে হিলারি ট্রাম্পকে আমেরিকানদের হৃদয়ে লালন করা চিন্তাকে গুরুত্ব দেবার আহবান জানান। বিশেষ করে মুসলিম অভিবাসীদের আগমন বন্ধ করা ও প্রচারণার সময় নারী সাংবাদিকদেরকে অবমাননা থেকে ট্রাম্পকে সরে আসার কথা উল্লেখ করে হিলারি বলেন, আমাদের সংবিধানিক গণতন্ত্র শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তরের কথা বলে। আমরা এটা শুধু মানি না বরং এ সংবিধানের আইনকে ভালোবাসিও।

তিনি বলেন, সংবিধানে আরো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, আইনের শাসন, সমান অধিকার ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতায় এখানে সবাই সমান। আমাদের অবশ্যই তা অনুসরণ করে চলতে হবে। হিলারি পরবর্তী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে সবাইকে এক হয়ে কাজ করারও আহবান জানান।