দেশের আকাশে রমজানের চাঁদ, মঙ্গলবার থেকে রোজা

ramjanনিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশের আকাশে পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা গেছে। আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে রোজা। শুরু হলো সিয়াম সাধনার মাস পবিত্র মাহে রমজান।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে কমিটি সূত্রে এসব খবর জানা গেছে। বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে এ সভায় সভাপতিত্ব করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান।

এদিকে রমজান উপলক্ষে আজ সোমবার রাত থেকেই শুরু হচ্ছে তারাবীহ নামাজ। রাতের প্রথমভাগে তারাবিহ্ নামাজ আর শেষ ভাগে সেহরি শুরু হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় ধরা হয়েছে রাত ৩টা ৩৮ মিনিট। এছাড়া প্রথম রোজার ইফতারের সময় ধরা হয়েছে ৬টা ৪৮ মিনিট।

মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের অফুরন্ত রহমত, মাগফিরাত ও নাজাতের অমিয় বারতা নিয়ে আসে পবিত্র মাহে রমজান। সংযম চর্চার মধ্য দিয়ে আত্মশুদ্ধি অর্জন ও মহান আল্লাহপাকের অনুগ্রহ লাভের লক্ষ্যে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা পালন করে থাকেন সিয়াম সাধনা।

দিনের বেলা পানাহার থেকে বিরত থাকা ছাড়াও জাগতিক মোহ, কাম, ক্রোধ, লোভ-লালসা দমন করে আত্মশুদ্ধির সাধনা চলবে পুরো রমজান মাস জুড়ে। রোজা রাখার পাশাপাশি সাধ্যমতো দান-খয়রাত ও বেশি বেশি নফল ইবাদতের মধ্য দিয়ে ইসলামে অত্যন্ত মর্যাদাপূর্ণ এই মাসের দিনগুলো অতিবাহিত করবেন মুসল্লিরা।

রহমত ও বরকতের দিক দিয়ে রমজান মাস বছরের অন্য ১১ মাস থেকে ভিন্ন। এ সম্পর্কে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) বলেছেন, রমজান মাসের প্রথমাংশে রহমত, দ্বিতীয়াংশে মাগফিরাত অর্থাৎ ক্ষমা আর তৃতীয়াংশে নাজাত তথা দোজখ থেকে মুক্তি।

আখেরি নবী মদিনায় হিজরত করে যাওয়ার দ্বিতীয় বছরে রমজানের সিয়াম পালনের বিধান নিয়ে নাজিল হয় কুরআন মজিদের সুরা বাকারার ১৮৩ নম্বর আয়াত। এতে ঘোষণা করা হয়, হে মুমিনরা, তোমাদের প্রতি সিয়াম পালন আবশ্যিক করা হলো, যেমন তা আবশ্যিক করা হয়েছিল তোমাদের আগে যারা ছিল তাদের প্রতি, যাতে তোমরা মুত্তাকি হতে পার।