৫ জানুয়ারি ছাত্রলীগ শক্তিশালী ভূমিকা রাখতে পারেনি

satro-বাংলাদেশ_ছাত্রলীগের_লোগো.svg স্টাফ রিপোর্টার: ছাত্রলীগকে উদ্দেশে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ৫ জানুয়ারি ও ৫ মে ছাত্রলীগ শক্তিশালী ভূমিকা রাখতে পারেনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) মিলনায়তনে শুক্রবার দুপুরে এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।

‘শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস’ উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে ছাত্রলীগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শাখা।

ছাত্রলীগকে প্রশ্ন রেখে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাহলে আমরা কতটুকু শক্তিশালী? কতটা সবল? পরাজিত শক্তির সঙ্গে আমরা বিজয়ীরা কোথাও কোথাও কেনো এত দুর্বল?

তিনি বলেন, এ দুর্বলতা নিয়ে ভাবতে হবে। দুর্বলতা থেকে শক্তি সঞ্চয় করতে হবে। সঙ্কট থেকে সঙ্কট উত্তোরণের পথ বের করতে হবে।

ছাত্রলীগকে উদ্দেশে ক্ষমতার দাপট খাটিয়ে হল দখল করা কখনো ভাল দৃষ্টান্ত নয়। ক্ষমতায় কেউ চিরদনি থাকে না। ক্ষমতাচ্যুত হলে ঠিকই হল ছেড়ে পালাতে হবে। তখন বিরোধীরাই আবার হলে অবস্থান নেবে।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বক্তব্যের সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, গণতন্ত্র নয়, বিএনপির আন্দোলনের কফিন কবরে চলে গেছে।

তিনি বলেন, দেশের সার্বভৌমত্ব নয়, দল হিসেবে বিএনপি আজ চরম সংকটে। তাদের নেতারাই নাই। তাহলে কর্মী আসবে কোথা থেকে? প্রশ্ন রাখেন তিনি।

বিএনপির আন্দোলনের হুমকির কথা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলন করে সরকার হঠানোর মুরোদ নেই। গত ছয় বছর ধরে আন্দোলন দেখে আসছি। এই বছর না ওই বছর। আন্দোলন কোন বছর সেটাই জনগণের প্রশ্ন।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর এই সদস্য হুঁশিয়ার উচ্চারণ করে বলেন, আন্দোলনের নামে সহিংসতা করা হলে জনগণের জান-মাল রক্ষার্থে তা কঠোর হাতে দমন করা।

ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আগামী তিন চার মাসের মধ্যে ডিসিসি নির্বাচন দেয়া হবে। আওয়ামী লীগ নির্বাচন ভয় পাই না। নির্বাচন বিরোধী দলের আন্দোলনও বাধাগ্রস্ত হবে না।

ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতি মেহেদী হাসানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ওমর শরীফের সঞ্চালনায় এ আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন- চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুল মান্নান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ডা. নুজহাত চৌধুরী, ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ প্রমুখ।