ভর্তি পরীক্ষা বর্জন করলো জবি শিক্ষক সমিতি

ju_gate_333869নিউজ ডেস্ক: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) স্নাতক প্রথম বষের্র আসন্ন ভর্তি পরীক্ষা বর্জন করেছে জবি শিক্ষক সমিতি। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মর্যাদা রক্ষা, স্বতন্ত্র পে-স্কেল, শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়ন ও উচ্চ শিক্ষা কমিশন গঠনের দাবিতে চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবে বুধবার সমিতির এক জরুরি সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

এদিকে, শিক্ষকরা অনমনীয় হলেও শুক্রবার অনুষ্ঠেয় ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষা স্থগিতের কোনো সিদ্ধান্ত জানায়নি কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার শিক্ষা পর্ষদের জরুরি বৈঠক ডেকেছেন ভিসি।

শিক্ষক সমিতি একদফা বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত জানালে ভিসি অধ্যাপক মীজানুর রহমান শুক্রবারের পরীক্ষা নিতে তাদের প্রতি আহ্বান জানান। এরপর আবার বৈঠকে বসেন শিক্ষক নেতারা। তবে তাদের সিদ্ধান্তে কোনো পরিবর্তন আসেনি।

সমিতির সভাপতি অধ্যাপক আলী নূর বলেন, ভিসি আমাদের পরীক্ষা নিতে বলেছিলেন। পরে আমরা আবার বৈঠক করি, কিন্তু শিক্ষকরা অনমনীয়। শুক্রবার আমরা পরীক্ষা বর্জনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

ভিসি অধ্যাপক মীজানুর রহমান বলেন, শুক্রবারের পরীক্ষা হবে, স্থগিত করা হয়নি। আর উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় একাডেমিক কাউন্সিলের জরুরি সভা আহ্বান করেছি।

জবিতে আগামী ৯ অক্টোবর ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষা দিয়ে ভর্তি পরীক্ষা শুরুর সূচি রয়েছে। ১৬ অক্টোবর ‘সি’ ইউনিট, ৩০ অক্টোবর ‘এ’ ইউনিট, ৬ নভেম্বর ‘ডি’ ইউনিট এবং ১৩ নভেম্বর ‘ই’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা হওয়ার কথা।

প্রসঙ্গত, অষ্টম বেতন-স্কেলে আপত্তি জানিয়ে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা আন্দোলন চালিয়ে আসছেন। এনিয়ে স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

এর আগে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষকদের সমিতির মোর্চা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের নেতারা মঙ্গলবার শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে দাবি আদায়ে অনড় থাকার কথা জানান।

Share This: