প্রক্রিয়াজাত মাংস ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়

timthumb.phpনিউজ ডেস্ক:গরু, ছাগল, ভেড়া বা শূকরের মাংস খাওয়া বা প্রক্রিয়াজাত করা মাংস খেলে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে বলে এক জরিপে বলা হয়েছে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ক্যান্সার গবেষণা সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক এজেন্সি তাদের এক গবেষণা রিপোর্টে এ সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে।
রিপোর্টে বলা হয়, প্রক্রিয়াজাত করা মাংস অর্থাৎ সসেজ, হ্যাম, সালামী বা হট ডগ জাতীয় খাবারকে ‘কার্সিনোজেনিক’ অর্থাৎ মানবদেহে ক্যান্সার সৃষ্টিতে সক্ষম বলে শ্রেণীভুক্ত করা যেতে পারে।
আর গবাদিপশুর মাংস অর্থাৎ ‘রেড মিট’ খাওয়াটা ‘সম্ভবত’ ক্যান্সার সৃষ্টি করতে পারে- এমন শ্রেণীভুক্ত করা হয় ওই রিপোর্টে।
জরিপে দেখা যাচ্ছে, প্রতিদিন মাত্র ৫০ গ্রাম করে প্রক্রিয়াজাত মাংস খেলেও অন্ত্রের ক্যান্সারের সম্ভাবনা ১৮ শতাংশ বেড়ে যায়।
তবে প্রক্রিয়াজাত নয় এমন লাল মাংসের ক্ষেত্রে চিত্রটা অত পরিষ্কার নয়। জরিপে বলা হচ্ছে গরু, ভেড়া বা শূকরের মাংস খেলে ক্যান্সার হতে পারে এমন ‘সীমিত’ প্রমাণ পাওয়া গেছে, তবে এর অন্য ব্যাখ্যাও করা সম্ভব।
সারা পৃথিবীর মাংস ব্যবসার সাথে সংশ্লিষ্টরা এই রিপোর্টে যে আদৌ খুশি হবেন না তার স্পষ্ট।
কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, যারা মাংস খাচ্ছেন তাদের জানা উচিত যে মাংস খাওয়ার স্বাস্থ্যগত উপকারিত আছে ঠিকই- কিন্তু ঝুঁকিও আছে। সুতরাং ‘মাংস কম খান’- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বার্তা এটাই।

Share This: