নারায়ণগঞ্জ নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি, জেলা পরিষদ বর্জন

bnp-logo_43701নিউজ ডেস্ক: আগামী ২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। দেশে প্রথমবারের মত দলীয় মনোনয়ন ও প্রতীকে হতে যাওয়া সিটি করপোরেশনের এই নির্বাচনে দলটি প্রার্থী দেবে। তবে ২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় ‘নির্দলীয়’ জেলা পরিষদ নির্বাচন বর্জনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত হয়। ১৫ আগস্ট জন্মদিন পালনের একটি মামলায় গতকাল আদালতে জারি হওয়া গ্রেপ্তারি পরোয়ানা মাথায় নিয়েই এই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

বৈঠক থেকে বের হয়ে সাংবাদিকদের কাছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন ও জেলা পরিষদ নির্বাচনের বিষয়ে দলের সিদ্ধান্তের কথা সাংবাদিকদের জানান বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে এই জন্য যে আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি। বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক দল এবং নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতার পরিবর্তন সম্ভব বলে আমরা মনে করি।

জেলা পরিষদ নির্বাচনের বিষয়ে ফখরুল বলেন, আমরা মনে করি, জেলা পরিষদ নির্বাচনের যে প্রক্রিয়া, সেটি সংবিধানে নির্বাচন সম্পর্কে যে নির্দেশনা রয়েছে, তার সাথে সাংঘর্ষিক। তিনি বলেন, এই নির্বাচনের ফল আগেই প্রস্তুত করা হয়ে গেছে। কারণ জেলা পরিষদ নির্বাচনে যারা ভোটার হবেন, তারা কিন্তু আগের নির্বাচনে নির্বাচিত হয়েছেন। বেশিরভাগ, ৯৯.৯% সরকার নিয়ে চলে গেছে। দেশের জন্য কোনো কল্যাণ বয়ে আনবে না বলেই আমরা জেলা পরিষদ নির্বাচন বর্জনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

২১ নভেম্বর বিক্ষোভ কর্মসূচি

১৫ অগাস্ট জন্মদিন পালনের এক মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে আগামী ২১ নভেম্বর সারাদেশে জেলা ও মহানগরের থানায় থানায় বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি। ফখরুল বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মহানগর হাকিম আদালত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে। এতে স্থায়ী কমিটি তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। সভা মনে করে, সামগ্রিক যে নীলনকশা ও চক্রান্ত বাংলাদেশকে রাজনীতি বিবর্জিত করা, বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে নিশ্চিহ্ন করা এবং দেশনেত্রীকে হেয় প্রতিপন্ন করার চক্রান্তের অংশ হিসেবে এই পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

বৈঠকে স্থায়ী কমিটির সদস্য আ স ম হান্নান শাহের মৃত্যুতে গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে দলের প্রতি তার ভূমিকার জন‌্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয় বলে জানান মহাসচিব। বৈঠকে ফখরুল ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান, তরিকুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে আইভীর লিখিত আবেদন

বিশেষ প্রতিনিধি জানান, আগামী ২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে আনুষ্ঠানিকভাবে আবেদন করেছেন বর্তমান মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সেলিনা হায়াত্ আইভী। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বরাবর লিখিত আবেদনপত্রে তিনি ওই মনোনয়ন চান। আইভী আবেদনটি ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে গিয়ে জমা দেন। এটি গ্রহণ করেন দলের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ।

পরে সেলিনা হায়াত্? আইভী সাংবাদিকদের বলেন, তৃণমূলের জন্য আমি কাজ করেছি। এটা সবাই দেখেছেন। এ জন্য নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন পেতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে লিখিত আবেদন করেছি। দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী। আবদুস সোবহান গোলাপ বলেন, আইভীর আবেদনপত্র আজ শুক্রবার সেটা দলের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় পেশ করা হবে।’

Share This: