‘রকিবউদ্দীনের চেয়ে এগিয়ে নতুন সিইসি’

নিউজ ডেস্ক: নবনিযুক্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) আওয়ামী দলীয় চেতনায় কাজী রকিবউদ্দীনের চেয়ে আরো কয়েক ধাপ এগিয়ে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক ব্রিফিং এ সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, দলীয় সরকারের অধীনে ও সরকারের হুকুমে রকিবউদ্দীন নির্বাচন কমিশন নির্বাচনী ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। নতুন সিইসির আগামী জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হওয়ার ব্যাপারে দেশের মানুষের মধ্যে আস্থার সৃষ্টি হয়নি। তার অতীত কর্মকাণ্ড এবং প্রধান নির্বাচন কমিশনার ঘোষণার পরপরই তার বিভিন্ন বক্তব্যে তিনি যে ‘কমিটেড আওয়ামী লীগার’, সেটি ফুটে উঠেছে। জনমতের প্রতি সম্মান জানিয়ে তিনি সাংবিধানিক পদ থেকে সরে দাঁড়ালে জাতি তাকে স্বাগত জানাবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে একটি অন্তর্বর্তী নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে বোঝা যাবে কোন দল রাজনৈতিক প্রাঙ্গণে অপ্রাসঙ্গিক হয়েছে। বিএনপি না আওয়ামী লীগ কে ভুল করেছে সেটি জনগণই বিচার করবে।

রিজভী বলেন, আমরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে একমত, তিনি বলেছেন, বন্ধুপ্রতিম দেশ হিসেবে বাংলাদেশে আগামী নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র।

সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন না হওয়ার সমালোচনা করে রিজভী বলেন, সে সময় ঘটনাস্থলে তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন আসামিদের ধরার জন্য ৪৮ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছিলেন। সেই ৪৮ ঘণ্টা এখনো শেষ হয়নি। শুধু সাগর-রুনিই নয় বর্তমান সরকারের শত্রুতে পরিণত হয়েছেন সাংবাদিকেরা।

রিজভী অভিযোগ করেন, কেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এই চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডটি এড়িয়ে যাচ্ছে, তা নিয়ে মানুষের মনে এক দীর্ঘ প্রশ্নের উদ্রেক হয়েছে। নিশ্চয়ই এর পেছনে রাঘব বোয়ালেরা জড়িত।

Share This: