শিশু জিহাদের মৃত্যুর ঘটনায় ৪ জনের ১০ বছর জেল

নিউজ ডেস্ক: শিশু জিহাদের মৃত্যুর ঘটনায় করা মামলার রায়ে চারজনের ১০ বছর জেল, দুইজনকে খালাস দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাদের প্রত্যেককে দুই লাখ টাকা করে জরিমানার দণ্ড দেয়া হয়েছে। তাদের প্রত্যেকের দায়িত্বে চরম অবহেলার কারণে পাইপে পড়ে জিহাদের মৃত্যু হয়েছে বলে রায়ের পর্যবেক্ষণে বলা হয়েছে।

রোববার দুপুর ১২টা ৩৫ মিনিটে ঢাকার পাঁচ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. মো. আকতারুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন।

এ মামলার আসামিরা হলেন— রেলওয়ের জ্যেষ্ঠ উপসহকারী প্রকৌশলী জাহাঙ্গীর আলম, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স এসআর হাউজের মালিক মো. শফিকুল ইসলাম ওরফে আবদুস সালাম, কমলাপুর রেলওয়ের সহকারী প্রকৌশলী মো. নাসির উদ্দিন, ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার জাফর আহমেদ শাকি, সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) দীপক কুমার ভৌমিক এবং সহকারী প্রকৌশলী-২ মো. সাইফুল ইসলাম।

তবে এদের মধ্যে সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) দীপক কুমার ভৌমিক এবং সহকারী প্রকৌশলী-২ মো. সাইফুল ইসলামকে মামলা থেকে খালাস দেয়া হয়েছে।

রায় ঘোষণার পর পাবলিক প্রসিকিউটার বলেন, ‘এই রায়ে দৃষ্টান্ত স্থাপিত হলো, যত বড় কর্তাই হোক না কেন, দায়িত্বে অবহেলা করলে কেউই আইনের উর্ধ্বে ন।’

রাজধানীর শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনিতে পাইপের মধ্যে পড়ে ৪ বছরের শিশু জিহাদের মৃত্যুর ঘটনায় করা মামলায় রোববার সোয়া বারোটা থেকে ঢাকার পাঁচ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. মো. আকতারুজ্জামান এ রায় পড়া শুরু করেন।