ধামরাইয়ে ১৫ দিনে ২টি মোটর সাইকেল ও ১টি মাইক্রো ছিনতাই

ধামরাই প্রতিনিধি: ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের জয়পুরা পাল সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনের কাছ থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার অপরাহ্নে চালককে মারপিট করে যাত্রীবেশী দুর্বৃত্তরা একটি নোয়া মাইক্রো ছিনতাই করে নিয়ে গেছে বলে জানা গেছে। এ নিয়ে গত ১৫ দিনে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ে দুটি মোটর সাইকেল ও একটি মাইক্রো বাস ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। এদিকে বুধবার সন্ধ্যায় ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার শাহ মিজান শাফিউর রহমান আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজায় আইন শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখার জন্য উপজেলার পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভা করেন। এরপর পরদিন গতকাল বৃহস্পতিবার দিনের বেলায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ে পাল সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনের কাছে একটি নোয়া মাইক্রো ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটলো।
নোয়া মাইক্রো চালক কালাম জানায়,গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এক রোগী ও তার স্বজনদের নিয়ে মানিকগঞ্জ শহরে নামিয়ে দেন। এরপর ঢাকায় ফেরার পথে মানিকগঞ্জ বাসষ্ট্যান্ড থেকে চারজন যাত্রী ঢাকা যাবে বলে ছয়শত টাকায় ভাড়ার চুক্তিতে মাইক্রোতে উঠে। বিকেল তিনটার দিকে তাদের নিয়ে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের জয়পুরা পাল সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনের প্রায় তিনশত গজ পূর্বে ওই যাত্রীরা প্রস্রাব করার কথা বলে গাড়ী থামাতে বলেন। এরপর গাড়ী থামালে তাকে মারপিট করে পিছনের সিট নিয়ে যান। কিছুদুর আসার পর কেলিয়া ব্রীজের কাছে তাকে নামিয়ে দিয়ে গাড়ী (গাড়ী নং-ঢাকা মেট্রো-চ-৫১-৯০৮৮) নিয়ে ঢাকার দিকে চলে যায় যাত্রীবেী ছিনতাইকারীরা। এসময় তার কাছ থেকে তিন হাজার টাকা ও একটি মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়। পরে ধামরাই থানায় এসে ছিনতাইয়ের ঘটনা জানায় ওই চালক।
গত শনিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাত নয়টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের কচমচ এলাকায় মোটর সাইকেল আরোহী মানিকগঞ্জ জেলা সদরের বড় আটিগ্রাম গ্রামের মহিউদ্দিন প্রামানিকের ছেলে অলিউর রহমান বিল্টকে গতিরোধ করে কুপিয়ে একটি ডিসকভারী মোটর সাইকেল ছিনতাই করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। এব্যাপারে ধামরাই থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
গত ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের পাল সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনের কাছে ঢাকাগামী ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার ফারুক হাওলাদারের ছেলে সারোয়ার হোসেন হাওলাদারকে কুপিয়ে তার ডিসকভারী একটি মটর সাইকেল ছিনতাই করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায়ও থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।
এদিকে গত ১০ সেপ্টেম্বর রবিবার দুপুরে পৌরসভার বিজয়নগর মহল্লার শাহজাহান মিয়ার ছয়তলা ভবনের তৃতীয় তলার ভাড়াটিয়া বাইরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী সকাল নয়টার দিকে কক্ষে তালা দিয়ে কর্মস্থলে চলে যায়। এ সুযোগে তালা খুলে কক্ষের ভিতরে প্রবেশ করে কে বা কারা কাপড় চোপড় তছনছ করে এবং নগদ সাত হাজার টাকা ও পৌনে এক ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায়। বাইরুল ইসলাম জানান,কর্মস্থল থেকে তিনটার দিকে বাসায় এসে দেখি তার কক্ষে তালা নেই। এছাড়া ওই ভবনের ১শত গজ দুরত্বে আতাউর রহমানের দ্বিতীয় তলা ভবনের নিচ তলার ভাড়াটিয়া মনি তার কক্ষে তালা দিয়ে কর্মস্থলে চলে যান সকালে। এ সুযোগে বেলা তিনটার মধ্যে কে বা কারা কক্ষের তালা ভেঙে ভিতরে ঢোকে একটি ল্যাপটপ ও একটি মোবাইল সেট নিয়ে যায়। এসময় অন্যান্য ভাড়াটিয়াদের কক্ষ বাইরে থেকে সিটকিনি দিয়ে আটকিয়ে রাখে। এছাড়া গত দুই সপ্তাহে পৌরসভার দক্ষিনপাড়া জাবেদ হোসেনের বাসায়,পাঠানটোলা কামরুজ্জামান মুরাদের বাসাসহ কয়েকটি বাসায় একই সুযোগ নিয়ে একই কায়দায় দুর্বৃত্তরা প্রবেশ করে কয়েক লক্ষ টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে।
এ বিষয়ে ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ রিজাউল হক বলেন, টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে নোয়া মাইক্রোসহ চার ছিনতাইকারী আটক হয়েছে। তাদের কাছ থেকে অন্যান্য ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িতদের তথ্য জানা যাবে এবং ছিনতাইকারীদের আটকের অভিযান চালানো হবে।

Share This: