করোনায় মৃতের সংখ্যা ২ হাজার ছাড়িয়েছে

লাইভ প্রেস২৪ ডেস্ক : চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে করোনাভাইরাসে নতুন করে ১৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দুই হাজার পেরিয়েছে। নতুন করে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৯০৭ জন। সবমিলিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৫ জনের এবং মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৮২ হাজারের বেশি।

বুধবার দেশটির জাতীয় দৈনিক দ্য স্ট্রেইট টাইমসের প্রতিবেদনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাতে জানানো হয়েছে, হুবেই প্রদেশে আরও ১৩২ জন মারা গেছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়িয়েছে।

খবরে বলা হয়, ১৯ ফেব্রুয়ারি এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে উহানে আরও ১৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। চীনে সবমিলিয়ে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৫ জনের। এর বাইরে ফিলিপাইন, হংকং, জাপান, ফ্রান্স ও তাইওয়ানে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মতে, হুবেই ৪৫ হাজার ৯০০ জন রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। যার মধ্যে ২ হাজার ২৮৫ জন গুরুতর অসুস্থ। ৯৬৭৬ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন।

বিশ্বে যেসব দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে- চীন- ৭৪ হাজার ১৮৫ জন, জাপান- ৬১৪ জন, সিঙ্গাপুর- ৮১ জন, হংকং- ৬২ জন, দক্ষিণ কোরিয়া- ৪৬ জন, থাইল্যান্ড- ৩৫ জন, তাইওয়ান- ২২ জন, মালয়েশিয়া- ২২ জন, জার্মানি- ১৬ জন, ভিয়েতনাম- ১৬ জন, অস্ট্রেলিয়া- ১৫ জন, যুক্তরাষ্ট্র- ১৫ জন, ফ্রান্স- ১২ জন আক্রান্ত, ম্যাকাও- ১০ জন, সংযুক্ত আরব আমিরাত- ৯ জন, যুক্তরাজ্য- ৯ জন, কানাডা- ৮ জন, ফিলিপাইন- ৩ জন আক্রান্ত, ভারত- ৩ জন, ইটালি- ৩ জন, রাশিয়া- ২ জন, স্পেন- ২ জন, বেলজিয়াম- ১ জন, কম্বোডিয়া- ১ জন, মিশর- ১ জন, ফিনল্যান্ড- ১ জন, নেপাল- ১ জন, শ্রীলঙ্কা- ১ জন, সুইডেন- ১ জন।

এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ড. লিউ’র আগে চীনে হাই-প্রোফাইল চিকিৎসক হিসেবে মারা যান উহান সেন্ট্রাল হাসপাতালের ডা. লি ওয়েনলিয়াং। ভাইরাসটি সম্পর্কে আগেই সতর্ক করে আলোচনায় এসেছিলেন তিনি। লি ওয়েনলিয়াং সতর্ক করে দিয়ে বলেছিলেন, সার্সের মতো মহামারি আকার ধারণ করতে পারে এই নতুন ভাইরাস। তবে তখন তার সে কথায় পাত্তা দেয়নি দেশটির কর্তৃপক্ষ। পাল্টা তাকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে হুমকি দেয়া হয়।

এদিকে সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, নভেল করোনাভাইরাস থেকে সৃষ্ট কোভিড-১৯ নামক রোগে আক্রান্ত হয়ে ২ হাজার জন প্রাণ হারিয়েছেন। চীনের বাইরে হংকং, তাইওয়ান, জাপান, ফিলিপাইন ও ফ্রান্সে একজন করে মোট পাঁচজন মারা গেছেন।

এছাড়া ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৮২ হাজারের বেশি। এর মধ্যে শুধু চীনেই আক্রান্তের সংখ্যা ৭০ হাজার ৫৪৮। চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১০ হাজার ৬১০ রোগী। বাণিজ্য, ব্যবসা আর পণ্য পরিবহনে গতি কমায় চীনসহ বিশ্ব অর্থনীতিও এখন করোনা আক্রান্ত হয়ে ধুঁকছে।

লাইভ প্রেস২৪/জেডআই

Share This: