দাদাকে হত্যার দায়ে  নাতিকে গ্রেফতার! 

আলমগীর হোসেন, লাইভ প্রেস২৪, লক্ষ্মীপুর : দাদাকে হত্যার দায়ে নাতি আব্বাস উদ্দিন (৩০) কে গ্রেফতার করে লক্ষীপুর সদর উপজেলার  চন্দ্রগঞ্জ থানার পুলিশ। হত্যাকারী মামলার আসামী দীর্ঘ ২ বছর যাবত পলাতক ছিল।
সে মান্দারী ইউনিয়নের দক্ষিণ মান্দারী গ্রামের কাজিম উদ্দিন হাজ্বিবাড়ির বেল্লালের পুত্র। তিনি একই মামলার আসমী। বেল্লাল কারাগারে বন্ধী হয়ে জীবন যাপন করেন।
২৫ ফেব্রুয়ারি রাতে  চন্দ্রগঞ্জ থানার এস আই আবু মুসার নেতৃত্বে পুলিশের  একটি টিম স্থানীয় মান্দারি বাজার থেকে   হত্যা মামলার আসামী আব্বাসকে গ্রেফতার করে।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ৬ মে জায়গা সম্পত্তির বিরোধকে কেন্দ্র করে সালিশ বৈঠকে মারামারির এক পর্যায়ে আসামি আব্বাস উদ্দিন তার দাদা সামসুদ্দিনকে হত্যা করে। সেই হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতারকৃত আসামী আব্বাসের বাবা বেল্লাল হোসেন দীর্ঘদিন যাবত কারাগারে আছে। নিহতের স্ত্রী অর্থাৎ ধৃত আব্বাস উদ্দিনের দাদী  আইয়াতি বেগম সেই সময় বাদি হয়ে তার ছেলে বেল্লাল হোসেন ও নাতি আব্বাস উদ্দিনের বিরুদ্ধে চন্দ্রগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপর থেকে দীর্ঘদিন ধরে আব্বাস উদ্দিন পলাতক ছিল।
চন্দ্রগঞ্জ থানার ওসি জসিম উদ্দিন বুধবার লাইভ প্রেস২৪কে  জানান,সামসুদ্দিন হত্যা মামলার আসামী আব্বাস উদ্দিনকে গ্রেফতার  করা হয়। পরে  তাকে আদালতে প্রেরন করা হয়। আদালত তাকে কারাগারে প্রেরন করেন।দীর্ঘ ৩ বছর যাবত আত্মগোপনে ছিল।
লাইভ প্রেস২৪/জেডআই

Share This: