গাজীপুর সিটিতে ত্রাণ বিতরণে সমণ্বয়হীনতা, ভুক্তভোগী অভুক্তরা


লাইভ প্রেস২৪, গাজীপুর : গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনে রাজনীতির মত ত্রাণ বিতরণেও সমণ্বয়হীনতা এখন টক অব দ্যা টাউন। অলিগলির মুখে ভুক্তভোগী অভুক্তরা একমুঠু খাবারের আশায় বসে বসে ক্লান্ত অবসন্ন। এ নিয়ে মেয়র ও প্রতিমন্ত্রীর সমর্থকরা ফেইসবুকে একে অন্যকে দোষারোপ করছেন। শুন্য রাজপথে অভিযোগ শুনার কেহ নাই।

সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলম নিজের ফেইসবুক লাইভে এব্যপারে স্থানীয় সাংসদ প্রতিমন্ত্রীর সহযোগীতা চেয়েছেন। তবে এখনো কোন সমণ্বয় হয়েছে বলে জানা যায়নি।

এলাকাবাসির অভিযোগ, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনে ১১ লাখ ভোটার। বাস্তবে ২০ থেকে ২৫ লাখ লোক বসবাস করে। মেয়র প্রথমে ৫০ হাজার পরে বাড়িয়ে ১ লাখ করেছেন। যুব ও ক্রিড়া প্রতিমন্ত্রী দিচ্ছেন, তবে কত লোককে! তার হিসাবে বলেননি। আর মুক্তযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীকে দেখা গেছে মেয়রের কয়েকবস্তা খাদ্য বিলি করতে( এখানে সমণ্বয় হতেও পারে !)। চাহিদার তুলনায় অনেক কম ত্রাণ বিতরণ হচ্ছে। অভুক্ত মানুষ দ্বারে দ্বারে ধর্ণা দিচ্ছে একমুঠু সাহায্যের আশায়। যাহাও বিলি হচ্ছে তা অনেক ক্ষেত্রেই মুখ চিনে দেয়া হয়। অথচ যাহারা প্রকৃত অসহায় তাদের ফিরতে হচ্ছে শুন্য হাতে। বিতরণ করা ত্রাণের চাল-ডালের মান নিয়েও প্রশ্ন। । প্রতিস্রুতি অনুযায়ী পরিমানে কম থাকার অভিযোগও আছে।

আজ মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় বেক্সিমকো রোডে ১০ টাকার চাল সংগ্রহ করছিলেন অসংখ্য নারি পুরুষ। মাঝ বয়সী সালমা বেগম অভিযোগ করেন, তিনি এলাকার ভোটার হলেও কোন খাদ্য সহায়তা পাননি। তার বাসা পার্লপ্রিন্স কারখানার পেছনের বস্তিতে। ২শ টাকা ধার নিয়ে চাল কিনতে এসেছেন।

কলেজ রোডে নাম প্রকাশে একজন হোটেল কর্মচারি জানান, তিনি এখানকার ভোটার না। কয়েকদিন ঘুরেও এক কেজি চাল কারো থেকে পাননি। ঘটনা জানতে পেরে এই প্রতিবেদক মেয়রের বরাদ্ধ থেকে তার খাদ্য ব্যবস্থা করেছে।

কোনাবাড়ি এলাকার কাউন্সিলর মোঃ নাসিরের বিরুদ্ধে ত্রাণ বিতরণে ব্যপক অনিয়মের অভিযোগ।

টঙ্গী গাজীপুরের অধিকাংশ নেতাকর্মী ঘরে বসে সবই বুঝতে পরছেন। আবার তারা ফেইসবুকে সমাধানের নিজস্ব মন্তব্যও লিখছেন। তবে কাজের কাজটি সমাধান হচ্ছে না।

গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী ইলিয়াস আহমেদ বলেন, ত্রাণ ঠিকই দেয়া হচ্ছে । সমণ্বয়হীনতা আছে। মেয়র এবং প্রতিমন্ত্রী স্থানীয় নেতৃবন্দকে নিয়ে বসে বিষয়টি সুরাহা করতে পারেন।

এব্যপারে জানতে চাওয়া হলে, মেয়র সমণ্বয়ের কথা বরাবরই বলছেন। আর প্রতিমন্ত্রীর মুঠোফোনে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।

লাইভ প্রেস২৪/মোহাম্মদ আলম