করোনা প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব মানছেন না অনেকে

লাইভ প্রেস২৪,ঢাকা: করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব বাজায় রাখা নিশ্চিত করতে চাইছে সরকার। যে কারণে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি স্বীকৃত কাঁচাবাজার ও সুপারশপগুলো প্রতিদিন সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকবে বলে জানিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।

এছাড়া বিভিন্ন পাড়া ও মহল্লায় অবস্থিত নিত্যপণ্যের দোকানগুলো প্রতিদিন সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। সোমবার (৬ এপ্রিল) ঢাকা মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে সব ইউনিটকে এই নির্দেশনা দেয়া হয়।

অন্যদিকে করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার সরকারি নির্দেশনা সত্ত্বেও অহেতুক বাইরে বের হওয়ায় রাজধানীতে ২৫ জনকে ৮৯ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (৬ এপ্রিল) রাজধানীর ফার্মগেটে অভিযান চালায় র‌্যাব। সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

কিন্তু এত কিছুর পরও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখছেন না অনেকেই। ত্রাণ নেয়া, টিসিবি থেকে পণ্য কেনা ও ১০ টাকা কেজির চাল বিক্রিতে মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্ব। রীতিমতো ঘেঁষাঘেঁষি করে দাঁড়িয়ে কার আগে কে চাল নেবে সেই চেষ্টা। সংশ্লিষ্টরা বারবার বলার পরেও ব্যর্থ হচ্ছে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার চেষ্টা।

বুধবার (৮ এপ্রিল) ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নগরভবনে জনতা ব্যাংক শাখার সামনে অসংখ্য মানুষের ভিড়ের একটা ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এই ছবিটি ফেসবুকে পোস্ট করে অনেকেই সমালোচনা করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বেতন উত্তোলন করতে নগরভবন শাখার জনতা ব্যাংকে এভাবে ভিড় করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা।

তবে ডিএসসিসি সূত্র জানায়, সকল কর্মকর্তাদের মাসিক বেতন তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে চলে গেলেও পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের বেতন নিজে এভাবেই ব্যাঞ্চে এসে সংগ্রহ করতে হয়। তাই তারা এসে নিজেদের বেতন উত্তোলন করছেন। যে কারণে এই ভিড়ের সৃষ্টি হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সাধারণ ছুটির সময় (১৪ এপ্রিল পর্যন্ত) গ্রাহকের লেনদেনের সুবিধার্থে ব্যাংকগুলো সীমিত খোলা থাকছে। লেনদেন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলছে। আর ব্যাংক খোলা থাকছে বিকেল ৩টা পর্যন্ত। সে কারণে অনেক ব্যাংকগুলোতে লেনদেন করতে গ্রাহকদের ভিড় দেখা গেছে।

লাইভ প্রেস২৪/এমআর