সাভার, শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০

‘দর্শক থাক বা না থাক, মাঠের খেলা শুরু হোক’

লাইভ প্রেস২৪ ডেস্ক: করোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ সকল খেলাধুলা। আগামী ১৬ মে থেকে ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের প্রথম বড় লিগ হিসেবে মাঠে গড়াতে যাচ্ছে জার্মান বুন্দেসলিগা। কথাবার্তা চলছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও স্প্যানিশ লা লিগার ব্যাপারেও।

বলা বাহুল্য, ফুটবলের এ সবগুলো লিগই অনুষ্ঠিত হবে দর্শকশূন্য গ্যালারিতে রুদ্ধদ্বার স্টেডিয়ামে। খেলোয়াড় এবং ম্যাচ সংশ্লিষ্ট অন্যান্যদের জন্যও থাকবে বেশ কিছু কড়াকড়ি নিয়ম। যা মানার শর্তেই পুনরায় শুরু হচ্ছে ক্লাব ফুটবল।

কিন্তু ক্রিকেটের ব্যাপারে এমন কোন দৃশ্যমান অগ্রগতি নেই। কবে ফিরবে মাঠের ক্রিকেট, তা যেন কোন দেশের ক্রিকেট বোর্ডই বলতে পারে না। এমতাবস্থায় সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক কেভিন পিটারসেন পরামর্শ দিচ্ছেন ফুটবলের মতো করে হলেও যেন শুরু করে দেয়া হয় মাঠের ক্রিকেট।

পিটারসেনের মতে মাঠে দর্শকদের কাজ মূলত উৎসাহ-অনুপ্রেরণা বাড়ানো। কিন্তু এখন করোনা আতঙ্কে তাদের মাঝেই কোন উৎসাহ। তাই এবার দর্শকদের মনে আনন্দ-বিনোদন জোগানোর দায়িত্ব নিতে হবে ক্রিকেটারদেরই।

রয়টার্সকে দেয়া সাক্ষাৎকারে পিটারসেন বলেছেন, ‘দর্শক বা অন্যান্য মানুষদের এখন একটা মানসিক প্রশান্তি দরকার। তাদের বর্তমান মানসিক অবস্থা এখন খুবই নেতিবাচক, খুবই খারাপ অবস্থায়। খেলাধুলা অনেক মানুষের জন্যই ইতিবাচক টনিক হিসেবে কাজ করে। করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন না পাওয়া পর্যন্ত রুদ্ধদ্বার স্টেডিয়ামেই খেলতে হবে আমাদের।

এসময় খেলোয়াড়দের মাঠে ফিরতে আহ্বান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘ক্রীড়াবিদদের এটার সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। মাঠে দর্শক না থাকলে কী হয়েছে? টিভিতে সম্প্রচারিত হলে দর্শকের সংখ্যা থাকবে অনেক বেশি। কয়েকজন খেলোয়াড় জীবনের সেরা সময়ে রয়েছে। তারা কেন খেলতে চাইবে না?

লাইভ প্রেস২৪/বিএইচ