কাওরানবাজারে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব


লাইভ প্রেস২৪,ঢাকা: মাদকাসক্তি একটি বহুমাত্রিক সামাজিক সমস্যা। যে যুব সমাজ দেশ ও জাতির আগামী দিনের চালিকাশক্তি, তাদের একটি অংশ মাদকাসক্তির কবলে পড়ে নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকা-ে জড়িয়ে পড়ছে। মাদকাসক্ত তরুণরা কর্মশক্তি, মেধা ও সৃজনশীলতা হারিয়ে নৈতিকতা, মূল্যবোধ ও আদর্শ হতে বিচ্যূত হয়, যা দেশ ও জাতির জন্য বয়ে আনে অপূরণীয় ক্ষতি। র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সবসময়ই মাদক উদ্ধারের ক্ষেত্রে অত্যন্ত অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে এবং এই পর্যন্ত বিপুল পরিমাণ দেশী/বিদেশী অবৈধ মাদক উদ্ধার করে সাধারণ জনগণের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

মাদক ব্যবসায়ীরা প্রতিনিয়ত মাদক পরিবহনে নিত্য নতুন ও অভিনব কৌশল অবলম্বন করে আসছে। র‌্যাব এ সকল মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে দীর্ঘদিন ধরে গোয়েন্দা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ২৩/০৫/২০২০খ্রিঃ তারিখ আনুমানিক ১০.২০ ঘটিকায় র‌্যাব-২ এর আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, ডিএমপি ঢাকার তেজগাঁও থানাধীন কাওরান বাজারস্থ সিয়াম টাওয়ারের সামনে একজন ব্যক্তি অবৈধ মাদকদ্রব্য (গাঁজা) নিজ হেফাজতে রেখে বিক্রয়ের উদ্দেশ্য অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদ এর সত্যতা যাচায়ে র‌্যাব-২ এর আভিযানিক দল আনুমানিক ১০.৪৫ ঘটিকার সময় উক্ত স্থানে উপস্থিত হলে র‌্যাবের উপস্থিতি টেরপেয়ে মাদক ব্যবসায়ী ঘটনাস্থল হতে দ্রুত পালানোর চেষ্টা কালে (১) মোঃ রনি (২৫), কে আটক করে। গ্রেফতারকৃত আসামীকে গাঁজা চালান সংক্রান্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদে প্রথমে অস্বীকার করে। পরবর্তীতে তার দুই হাতে ধরে রাখা ব্যাগ তল্লাশী করে ৬ টি নীল রংয়ের পলিথিনের প্যাকেটে সর্বমোট ১৭ (সতের) কেজি নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য (গাঁজা) পাওয়া যায়। গ্রেফতারকৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, দীর্ঘদিন যাবৎ সে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদক ব্যবসা করে আসছে। ধৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানান যে, আসামী পরস্পর যোগসাজোসে দীর্ঘদিন যাবৎ ময়মনসিংহ শহর হইতে গাঁজা (মাদক) ক্রয় করে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বিক্রয় করে আসছিল। ধৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য যাচাই বাছাই করে ভবিষ্যতে র‌্যাব-২-এ ধরনের মাদক বিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে।

লাইভ প্রেস২৪/এমআর