কয়রায় যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালন | Live Press24

কয়রায় যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালন

Published on: 9:03 pmAugust 15, 2020

লাইভ প্রেস২৪,কয়রা (খুলনা): কয়রায় যথাযোগ্য মর্যাদায় বিভিন্ন কর্মসুচীর মধ্যে দিয়ে জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। হাজার হাজার শোকার্ত মানুষের বিনম্র শ্রদ্ধা ও হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসার পাশাপাশি ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হলেন বাংলাদেশের স্থপতি,মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শনিবার কয়রা উপজেলা পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধু’র প্রতিকৃতিতে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে জাতির পিতাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।

শোক দিবস উপলক্ষে দিনব্যাপী কোরআন তেলাওয়াত, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ প্রচার, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, কালো ব্যাজ ধারণ, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, মিলাদ মাহফিল, আলোচনা সভা ও দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা আওয়ামীগ জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে পৃথক পৃথক কর্মসূচী পালন করে। সকাল ৮:৩০ টায় খুলনা -৬ সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু কয়রা উপজেলা প্রশাসনকে সাথে নিয়ে রাষ্ট্রের পক্ষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে তাঁর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেষ বিশ্বাস এর সাথে উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে সাংসদ আক্তারুজ্জামান বাবু উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সভাপতি জি এম মোহসিন রেজাসহ আওয়ামী লীগের নেতাদের সাথে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।এরপর স্বাস্থ্য বিধি মেনে ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীসহ সর্বস্তরের মানুষ জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণের মাধ্যমে তাঁর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদের হল রুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেষ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন (কয়রা -পাইকগাছা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু। বক্তব্যে তিনি বলেন, আজকের এ বেদনাবিধূর দিনে আমরা এই মহানায়কের প্রতি জানাই গভীর শ্রদ্ধা । সেই সঙ্গে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুননেছা মুজিবসহ সেদিন নির্মমভাবে নিহত শিশু ও নারীসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ, নিকটাত্মীয় এবং নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ব্যক্তিদের প্রতিও শ্রদ্ধা নিবেদন করছি।তিনি আরও বলেন, “আমরা যারা আজ সোনার বাংলা বলি বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে সোনার বাংলা সৃষ্টি হত। না জাতি স্বাধীন হত না। একটা তর্জনী একটা মানচিত্র একটা বাংলাদেশের অহংকার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।”শোক দিবসের শোককে শক্তিতে পরিণত করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হবে।

এসময় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান কমলেশ কুমার সান,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাছিমা আলম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) নূরে আলম সিদ্দিকী, কয়রা থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল হোসেন, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ খান প্রমুখ।

অপরদিকে উপজেলা আওয়ামীলীগ শোক দিবস উপলক্ষে ১৫ আগস্ট শনিবার ভোরে কয়রা উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়সহ দলের বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত,দলীয় পতাকা এবং কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়।সাথে সাথে সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বেসরকারি ভবন ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বাড়ির ছাঁদ সমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়।দিবসটি উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে দুপুর ১২ টায় আলেচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি জি এম মোহসিন রেজার সভাপতিত্বে সাধারন সম্পাদক বিজয় কুমার সরদারের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন খুলনা ৬ সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু। এসময় তিনি বলেন,হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন এদেশের অবিসংবাদিত নেতা, ইতিহাসের মহানায়ক। তারই নেতৃতে আমরা পেয়েছি স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ, পেয়েছি লাল-সবুজে মহিমান্বিত জাতীয় পতাকা। আজকের এ বেদনাবিধুর দিনে আমরা এই মহানায়কের প্রতি জানাই গভীর শ্রদ্ধা।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও সাবেক জেলা আওয়ালীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডঃ কেরামত আলী,উপজেলা আওয়ামীগের সহ-সভাপতি মাস্টার কফিল উদ্দিন, খগেন্দ্রনাথ মন্ডল, যুবলীগ সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম, জেলা যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন বাবু, জেলা যুবলীগ নেতা শামীম সরকার, হারুন অর রশিদ, ছাত্রলীগ সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু,সাবেক ছাত্রলীগে নেতা রবিউল ইসলাম রবিন প্রমুখ।

আলোচনা সভা শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুসহ উনার পরিবারের সকল শহীদ, ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত দেশের জন্য প্রাণ দেয়া সকল শহীদ, প্রধানমন্ত্রী ও তার পরিবারের দীর্ঘায়ু কামনা এবং দেশের শান্তি কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।এর আগে সাংসদ আক্তারুজ্জামান বাবু প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মাধ্যমে ৫ জন যুব ও যুব নারীর মাঝে ৮০ হাজার টাকার চেক ও ১০০ টি জলাধার বিতরনের কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

লাইভ প্রেস২৪/ওবায়দুল কবির সম্রাট/এমআর

আরও পড়ুন

রাণীনগরে মানসিক রোগীর ভাসমান লাশ উদ্ধার
পোরশায় একই রাতে ৩টি গ্রামে ডাকাতি
আত্রাইয়ে টর্নেডোর আঘাতে বিধ্বস্ত দুইশতাধিক ঘর, আহত ৫
মুক্ত বাতাসে বাঁচতে চায় সাথী, মানবিক সাহায্যের আবেদন
ফুলবাড়ীতে বৃষ্টিতে অস্বস্তি!
জঙ্গী সংগঠনের সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২
কাপাসিয়ায় কয়লা কারখানায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান
পাওনা টাকা চাওয়ায় জঙ্গী বানিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেন সম্পাদক
কালীগঞ্জে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার
জমির বিরোধ নিয়ে দু’পক্ষের অস্ত্রের মহড়া, আহত ১৫