অগাস্ট ১০, ২০২২

নিউজ ডেস্ক: মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলায় নামাজ পড়তে যাওয়ার সময় ধরে নিয়ে প্রতিপক্ষের গুলিতে জুয়েল ফকির (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ভোরে উপজেলায় চরকেওয়ার ইউনিয়নের দক্ষিণ চরমশুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আধিপত্য বিস্তার ও আলু তোলা কেন্দ্র করে চরকেওয়ার ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুন ফকির ও সাধারণ সম্পাদক মন্টু দেওয়ান গ্রুপের কোন্দল চলে আসছিল।

এর জের ধরে বুধবার রাত থেকে স্থানীয় চরমশুরা-ফকিরকান্দি গ্রামে দুগ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা ও কয়েক দফা ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

হারুন ফকিরের চাচাতো ভাই জুয়েল ফকির ভোরে নামাজ পরতে যাওয়ার সময় প্রতিপক্ষে লোকজন তাকে জোর করে ধরে নিয়ে গুলি ও মাথায় আঘাত করে জমিতে ফেলে রেখে যায়।

পরে স্থানীয় লোকজন তাকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক জানান, পূর্ব শত্রুতা এবং আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মন্টু দেওয়ান ও হারুন ফকিরের মধ্যে পূর্ব থেকেই বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধের জের ধরেই এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে একজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।