অগাস্ট ১০, ২০২২

নিউজ ডেস্ক: ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় নেশাগ্রস্ত ছেলে মো. সাগরকে (২০) মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রে পাঠানোর জন্য দুলারহাট থানায় সোপর্দ করেছেন বাবা।

সাগর যেন স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারে সেজন্য শনিবার তাকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। তাকে দুলারহাট থানার ওসি মোরাদ হোসেনের তত্ত্বাবধানে বরিশাল নিরাময়কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

মো. সাগর উপজেলার দুলারহাট থানার নুরাবাদ ৪নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. সাদেকের ছেলে।

সাদেক জানান, তার ছেলে ১৩ বছর বয়সে লেখাপড়া থেকে বিচ্ছিন্ন হয়। তার দুলারহাট বাজারে ছোট একটি ব্যবসা আছে। ছয় মাস আগে থেকে সাগর তার বাবা-মায়ের অবাধ্য হতে শুরু করে এবং বাবা-মাসহ পরিবারের লোকজনদের অগোচরে স্থানীয় বখাটে ছেলেদের সঙ্গে মেলামেশা করে মাদকে আসক্ত হয়ে পড়ে।

এর পর সে প্রায়ই নেশাগ্রস্ত হয়ে বাসায় ফিরে এবং বিভিন্ন অজুহাতে মাদক ক্রয়ের জন্য তার বাবার নিকট টাকা-পয়সা চায়। সাগরের দাবি পূরণে ব্যর্থ হলে সাগর প্রায়ই তার পরিবারের লোকজনদের মারধরসহ ঘরের মালামাল ভাঙচুর করে। এমন পরিস্থিতিতে তার পরিবার অতিষ্ঠ হয়ে পুলিশকে সংবাদ দেয়। শনিবার পুলিশ তার ছেলেকে বরিশাল মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রে পাঠায়।

দুলারহাট থানার ওসি মোরাদ হোসেন জানান, ভিকটিম নিজে সুস্থ জীবনে ফিরে আসতে চায়। ভিকটিমের বাবার সম্মতিতে তার সন্তানের স্বাভাবিক ও সুস্থ জীবনে ফিরে আসার লক্ষ্যে পুলিশের পাহারায় তাকে মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্র বরিশালে পাঠানো হয়।