জার্মানিতে বাড়ল লকডাউন | Live Press24

জার্মানিতে বাড়ল লকডাউন

Published on: 3:03 pmApril 20, 2021

জার্মানিতে করোনার নতুন ধরন মোকাবিলায় সরকারের চলমান লকডাউনের সময়সীমা আগামী ৯ মে পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে দেশটির সাধারণ মানুষ। এদিকে, করোনার দুই ডোজ টিকা নেওয়ার পর আবারো অর্ধশতাধিক টিকা গ্রহীতা নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

জাক্সেন, থুইরিঙ্গেন, ও জাক্সেন আনহাল্ট এরপর জার্মানির বায়ার্ন ও নর্দরাইনওয়েস্টফালেনসহ বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যের বৃদ্ধাশ্রমে দুই ডোজ টিকা নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে প্রায় অর্ধশতাধিক ব্রাজিল, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ব্রিটেনের করোনার নতুন ধরনে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন।

তবে করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হলেও কয়েক সপ্তাহের মধ্যে প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মৃত্যু ঝুঁকিও কমে আসবে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্যবিভাগ।

এদিকে প্রায় প্রতিদিনই করোনায় মৃতের সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বাড়ায় শঙ্কিত প্রবাসীসহ স্থানীয়রা।

জার্মান প্রবাসী এক বাঙালি বলেন, দেখুন আমাদের সরকার যে টিকাই দিচ্ছে সেগুলোর মান নিয়ে আমাদের কোনো সন্দেহ নাই। তবে টিকা কার্যক্রম আরও বহু আগে শুরু করা প্রয়োজন ছিল। তাতে অন্তত অনেক মানুষ বাঁচত। এখনো টিকা কার্যক্রমে গতি আসেনি। টিকা বরাদ্দে সরকার কেন যে বিকল্প চিন্তা করছে না তা বুঝি না। এদিক দিয়ে কিছুটা হতাশা তো আছেই যেমন আমি কবে টিকা পাব তাও জানি না।

এরই মধ্যে জার্মানিজুড়ে করোনার নতুন ধরন আরও ছড়িয়ে পড়ায় সরকার আগামী ৯ মে পর্যন্ত লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানোর সিদ্ধান্তকে সাধারণ মানুষ স্বাগত জানালেও অনেক দেরি হয়ে যাওযায় অ্যাঙ্গেলা মার্কেল সরকারের সমালোচনা করেছেন অনেকে।

লকডাউনে নাগরিকদের সামাজিকভাবে চলাফেরা ও প্রয়োজন ছাড়া রাত ৯ থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত ঘরের বাইরে না যাওয়াসহ গণপরিবহনে মাস্ক পরার বিষয়ে কড়া নির্দেশনা জারি করেছে দেশটির প্রশাসন।

এক জার্মান নাগরিক বলেন, কী বলব, সরকার লকডাউনের সময়সীমা বা বিধিনিষেধে যে কড়াকড়ি আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাতে অনেক দেরি হয়ে গেছে। যদি আগেই এই কড়াকড়ি দেওয়া হতো তাহলে আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়াতো না। দোকান পাট, ব্যাবসা বাণিজ্য বিশাল ক্ষতি থেকে বেঁচে যেত।

এমন পরিস্থিতিতে জার্মানি ছাড়াও ইউরোপের ২৭ দেশে টিকা কার্যক্রমে গতি আনতে আরও ভ্যাকসিন বরাদ্দের বিষয়ে শক্ত মনোভাব ব্যক্ত করেছেন ইইউ কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরজুলা ফন ডেয়ার লাইয়েন।

আরও পড়ুন

চীনে টর্নেডোর আঘাতে নিহত ১০, আহত তিন শতাধিক
ফিলিস্তিনের গাজায় একই পরিবারের ২ নারী ও ৭ শিশু নিহত
ভয়-ভীতির মধ্যে দেশে দেশে উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর
সৌদিতে মসজিদে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত
অক্সিজেন সংকটে আইসিইউতে থাকা ১১ করোনা রোগীর মৃত্যু
যে গ্রুপের রক্তে করোনার ঝুঁকি বেশি
ভারতের সর্বনাশ কুম্ভমেলাতেই!
বিশ্বে করোনা রোগী ১৬ কোটি ছুঁই ছুঁই
বাংলাদেশসহ চার দেশ থেকে কুয়েতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা
মমতার নতুন মন্ত্রিসভার শপথ গ্রহণ